1. info@dainikbd24.com : দৈনিক বাংলাদেশ : দৈনিক বাংলাদেশ
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৪:১২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দূর্ঘটনায় স্বামীর মৃত্যু ও আর্থিক সাহায্যের জন্য অসহায় স্ত্রী’র সংবাদ সম্মেলন গাইবান্ধায় সংবাদ প্রকাশের জেরে বালু ব্যবসায়ীর চাঁদাবাজির মামলায় সাংবাদিক মিলন খন্দকারকে কারাগারে প্রেরণ জেলা প্রশাসকের আশ্বাসের পরও অধিগ্রহণ কৃত জমির মূল্য পাচ্ছে না জমির মালিকগন দুস্থ ও অসহায় মানুষের মাঝে সেনাবাহিনীর বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ গাইবান্ধায় বন্যা দুর্গতদের মাঝে চাল ও শুকনো খাবার বিতরণ সাদুল্লাপুরে প্রধান শিক্ষক কর্তৃক কিশোর বলাৎকারের ভিডিও ফাঁস ভেজাল ভূষি তৈরির সেই জিয়ার বিরুদ্ধে বিএসটিআই এর মামলা ! নানা আয়োজনে লায়ন গনি মিয়া বাবুল এর জন্মদিন উদযাপন গাইবান্ধা সদরে হত্যার উদ্দেশ্যে যুবককে ছুড়িকাঘাত,গৃহবধুর শ্লীলতাহানি পলাশবাড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বৃক্ষ রোপন

দেশের বৃহত্তম সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্র সুন্দরগঞ্জে

মিশন আহমেদ, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা):
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৮ আগস্ট, ২০২৩

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের লাটশালায় তিস্তা নদীর অনাবাদী চরে ৬৫০ একর জমিতে গড়ে উঠেছে দেশের বৃহৎত্তম এই সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্র। দেশের নবায়ন যোগ্য জ্বালানীর যোগান দিতে সৌর বিদ্যুৎ খাতে বিপ্লব ঘঠিয়েছে দেশের শীর্ষতম এ সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্র।

তিস্তা সোলার লিমিটেড নামে এই কেন্দ্রটি গড়ে তুলেছে বেক্সিমকো গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান বেক্সিমকো পাওয়ার লিমিটেড।

জানা গেছে, তিস্তা পাড়ের লাটশালা এলাকায় বিশাল কেন্দ্রটির নির্মাণ শুরু হয় ২০১৭ সালে। বসানো হয় সাড়ে ৫ লাখ সোলার প্যানেল। উৎপাদিত বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে যুক্ত করতে সুন্দরগঞ্জের তিস্তা পাড় থেকে বৃহত্তর রংপুর পর্যন্ত নির্মাণ করা হয়েছে ১২২টি টাওয়ারের ১৩২ কিলো ওয়াট ভোল্টের ৩৫ কিলোমিটার বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন। নির্মাণ করা হয়েছে সাবস্টেশন, বসানো হয়েছে ইনভার্টারসহ সব ধরনের যন্ত্র।

বন্যা, নদী ভাঙনের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে বিদ্যুৎকেন্দ্রটি রক্ষায় নির্মাণ করা হয়েছে বাঁধ ও চলাচলের জন্য সাত কিলোমিটার সড়ক। যার সুবিধা পাচ্ছেন স্থানীয়রাও।

সূত্র মারফত জানা গেছে, গত ডিসেম্বর থেকে পরীক্ষামূলকভাবে জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হচ্ছে উৎপাদিত বিদ্যুৎ। এ কেন্দ্র থেকে দিনে ২০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ যোগ হবে জাতীয় গ্রিডে।

এরই মধ্যে রংপুর সফরে এসে উত্তরের মানুষে জীবনমান উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি পূরনের অংশ হিসেবে এই বিদ্যুৎকেন্দ্র উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রকল্পটি নিয়ে বেক্সিমকো পাওয়ার লিমিটেডের চেয়ারম্যান শায়ান এফ রহমান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর একটা রোডম্যাপ আছে গ্লোবাল ওয়ার্মিং নিয়ে, পরিবেশ রক্ষা নিয়ে। সরকার এটা নিয়ে অনেক কাজ করছে। বেক্সিমকো অনেক খাতে পাইওনিয়ার। আমরা মনে করি, এই রিনিউয়াবল এনার্জি সেক্টর ভবিষ্যত জ্বালানির জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ হবে। তাই আমরা এখাতে বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নেই।’

এই প্রকল্প শতভাগ বেক্সিমকো পাওয়ার লিমিটেডের মালিকানায় উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, এই প্রকল্পে অর্থায়নে আমরা দেশে প্রথম সুকুক বন্ড চালু করি। এ প্রকল্পে আমাদের প্রায় ৩০০ মিলিয়ন ডলার খরচ হয়েছে। ভবিষ্যতে আমরা সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী আরো সৌর বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের চিন্তা করছি।’

এই প্রকল্প উত্তরবঙ্গে বিদ্যুৎ সরবরাহ বাড়ার পাশাপাশি ব্যবসা বাণিজ্যের সহায়ক পরিবেশ তৈরিতেও ভূমিকা ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতেও অবদান রাখবে বলে মনে করেন শায়ান এফ রহমান৷

বিশ্বব্যাপী পরিবেশ রক্ষায় সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদনে জোর দেওয়া হচ্ছে। উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ও জ্বালানি আমদানি কমাতে সরকারও এখাতে জোর দিয়েছে। যার গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার বেক্সিমকো। উত্তরবঙ্গে আরও একটি সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্র বাস্তবায়ন করছে দেশের শীর্ষ এই শিল্পগ্রুপ।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর...

© All Rights Reserved© 2022 DainikBD24

Theme Customized BY Sky Host BD