1. info@dainikbd24.com : দৈনিক বাংলাদেশ : দৈনিক বাংলাদেশ
শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ভাষা আন্দোলন বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল নোবিপ্রবিতে মাতৃভাষা দিবসে ফুল দেওয়াকে কেন্দ্র করে হট্টগোল স্ত্রীর সর্বস্ব হাতিয়ে নিয়ে ২৭ বছর পর তালাক! পলাশবাড়ীতে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে নিয়োগ বানিজ্যের অভিযোগে নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে শুভেচ্ছা ভালোবাসায় সিক্ত সাপ্তাহিক গাইবান্ধার বুকে দেশ বরেণ্য পরমাণু বিজ্ঞানী ওয়াজেদ মিয়ার ৮২ তম জন্মবার্ষিকীতে জেলা যুবলীগের শ্রদ্ধাঞ্জলি বগুড়ার আদমদিঘীতে জাতীয় দৈনিক ভোরের কাগজের সাংবাদিক মঞ্জু’র দ্বি-খন্ডিত লাশ উদ্ধার। ভালো ফলাফলের জন্যে আত্মবিশ্বাস থাকা প্রয়োজন লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল রংপুরে গুনগুন – রণন বই মেলা শুরু চলবে ১৭ ফেব্রুয়ারি পবিত্র মাহে রমজান মাস বন্ধ থাকবে সরকারি ও বেসরকারি (দাখিল, আলিম, ফাজিল ও কামিল) মাদ্রাসা।

মাননীয় হুইপ গিনি এমপির গাইবান্ধা হর্টিকালচার সেন্টার পরিদর্শন

নিজম্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট, ২০২২

স্টাফ রিপোর্টারঃ

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ মাহাবুব আরা বেগম গিনি এমপি মঙ্গলবার(১৬ আগস্ট) বিকালে তার নির্বাচনী এলাকায় অবস্থিত গাইবান্ধা হর্টিকালচার সেন্টারের বছরব্যাপী ফল উৎপাদনের মাধ্যমে পুষ্টি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় বাস্তবায়িত সার্বিক কার্যক্রম পরিদর্শন করেছেন।

এসময় হার্টিকালচার সেন্টারের ঢাকা খামার বাড়ি বছরব্যাপী ফল উৎপাদনের মাধ্যমে পুষ্টি উন্নয়ন প্রকল্প পরিচালক ড. মেহেদী মাসুদ,গাইবান্ধা হর্টিকালচার সেন্টারের উপ-পরিচালক ড. মো: সাইখুল আরিফিন, রংপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক মো: শাহ আলম,গাইবান্ধা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো: বেলাল হোসেন,গাইবান্ধা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি তাহমিদুর রহমান সিজু,আসিফ সরকার প্রমুখ  উপস্থিত ছিলেন।

এসময় জাতীয় সংসদের হুইপ মাহবুব আরা বেগম গিনি এমপি বলেন,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পুষ্টি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে গাইবান্ধা হর্টিকালচার সেন্টার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

এসময় আরো বলেন,এখানকার মাটি অত্যন্ত উর্বর যেকোন বীজ ও চারা রোপ করলে সহজেই ভালো ফলন পাওয়া যায়।এলক্ষ্যে ২০১৮ সালে ২১শে জুলাই হর্টিকালচার সেন্টারটি এখানে প্রতিষ্ঠা করা হয়।

উল্লেখ্য,এ প্রকল্পের আওতায় গাইবান্ধা হর্টিকালচার সেন্টারের বানিজ্যিক মিশ্র ফল বাগান প্রদর্শনী ৫টি, ফল বাগান ৫টি এবং ৫টি বসতবাড়িতে বাগান প্রদর্শনী বাস্তবায়িত হয়েছে।

চলমান কার্যক্রমের মধ্যে আম,মাল্টা,কমলা,পেয়ারা, আনার,বেল,আতা,জাম,লটকণ ফলের চারা প্রদর্শনী ও সরকারের নির্ধারিত মূল্যে বিক্রি করা হচ্ছে।

এসব বাগানে ৯১ প্রজাতির ফলের চারা পাওয়া যাচ্ছে। এছাড়া দেশি ও বিদেশি ফলের মাতৃ বাগান স্থাপন চলমান রয়েছে। এসব বাগানে বিদেশি ফলসমূহের মধ্যে রয়েছে থাই লংগান-পিংক, রেড ও হোয়াইট, ড্রাগন, লোকুয়াট, মিরাকেল্ল, বেরোবা, অলিভ, পার্সিমন, কফি, জাবোটিকাবা, রোলিনিয়া, নাশপাতি, পিচ, এপ্রিকট, ওয়ালনাট, হেজেলনাট, রাম্বুতান, সুরিনাম চেরি, ব্রাজিলিয়ান চেরি, অস্ট্রোলিয়ান চেরি, বল সুন্দরী, সীডলেস, ভিয়েতনামী খাটো,কাজুবাদাম, এ্যাভোকাডো চারা কলম এখানে রয়েছে।

পরিদর্শন শেষে মাননীয় হুইপ গাইবান্ধা হর্টিকালচার সেন্টারে ১টি উন্নত জাতের ফলের চারা রোপন করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর...

© All Rights Reserved© 2022 DainikBD24

Theme Customized BY Sky Host BD