1. info@dainikbd24.com : দৈনিক বাংলাদেশ : দৈনিক বাংলাদেশ
শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
অবশেষে যাত্রা করলো মাদারীপুর ২৫০ শয্যা হাসপাতাল রোগী সেবা কার্যক্রম গাইবান্ধা বোয়ালী ইউনিয়নের আশ্রয়ণ প্রকল্পের পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরণ গোপালগঞ্জে মাদক বিরোধী সমাবেশ ও শোভাযাত্রা গোপালগঞ্জে পিতার সন্ধানের দাবিতে পরিবারে সংবাদ সম্মেলন সুন্দরগঞ্জে অগ্নিকাণ্ডে দুইটি বসতবাড়ি ভষ্মিভূত পলাশবাড়ীতে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিক্স অনুষ্ঠিত গোপালগঞ্জে জমিজমা বিরোধের জেরে ভাতিজাদের হাতে চাচা নিহত কোটালীপাড়া পৌর নির্বাচনে সম্ভাব্য ১৬ প্রার্থী সাদুল্লাপুরে জোনার ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কুরআন শরীফ প্রদান। গোপালগঞ্জে বিদ্যা ও জ্ঞানের দেবী সরস্বতী পূঁজা অনুষ্ঠিত

বাবার স্বপ্ন পূরণে হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করতে এলেন বর

নিজম্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২৯ জুলাই, ২০২২

গোপালগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

 

বাবার ইচ্ছা ছিল ছেলে বিয়ে করতে হেলিকপ্টারে চড়ে যাবে। তাক লাগিয়ে দিবেন সবাইকে। বাবার সেই স্বপ্ন পূরণ করতে হলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করতে এলেন বর। আবার বিয়ে শেষে স্ত্রীকে নিয়ে সেই হেলিকপ্টারে চড়ে বাড়িতে গেলেন।

আর এ হেলিকপ্টারের উঠানামা দেখতে ছিল ব্যাপক ভীড় ছিল স্থানীয় জনগণের। বরযাত্রী এবং আত্মীয় স্বজনের চেয়ে হেলিকপ্টার দেখা উৎসুক জনগণই ছিল বেশী।

জানাগেছে,আজ শুক্রবার (২৯ জুলাই) দুপুর সাড়ে ১২ টায় গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলা হেলিপ্যাডে এসে অবতরণ করে বর ও বরযাত্রীবাহী একটি হেলিকপ্টার।

হেলিকপ্টারে বর সেজে এসেছিলেন পার্শবর্তী মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট বন্দরের হায়দার মিয়ার ছেলে কানাডা প্রবাসী অপু সুলতান। অপু সুলতানের সাথে বিয়ে হয় কোটালীপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সুমন হোসেন বাচ্চুর মেয়ে জিনিয়া হোসেন জেরিনের।

আওয়ামী লীগ নেতা সুমন হোসেন বাচ্চু এই বিয়েতে এই ব্যতিক্রমী আয়োজন করেন। বিয়েতে আত্মীয় স্বজন ও দলীয় নেতা-কর্মী মিলে প্রায় তিন হাজার লোককে দাওয়াত দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু কারো কাছ থেকেই নেওয়া হয়নি কোন উপহার। বিয়ের দাওয়াতের সময়েই প্রত্যেক অতিথিকে বিষয়টি জানিয়ে দিয়েছিলেন সুমন হোসেন বাচ্চু।

সুমন হোসেন বাচ্চুর ভাই স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বাবলু হাজরা বলেন,জেরিন আমাদের পরিবারের খুব আদরের মেয়ে। আমাদের পূর্বে থেকেই ইচ্ছা ছিল খুব ধূমধাম করে জেরিনের বিয়ের অনুষ্ঠান করার। আল্লাহতালা আমাদের সেই ইচ্ছা পূরণ করেছেন। আমরা আমাদের কন্যার জন্য সকল অতিথির কাছ থেকে উপহার হিসেবে শুধু দোয়া চেয়েছি। সকলের দোয়ায় আল্লাহ যেন আমাদের মেয়ে ও জামাইকে সুখে শান্তিতে রাখেন।

বর অপু সুলতান বলেন,আমার বাবার স্বপ্ন ছিল আমি যেন হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করতে যাই। আল্লাহতালা আমার বাবার স্বপ্ন পূরণ করেছেন। আমি বর সেজে হেলিকাপ্টারে বিয়েতে আসি। আর বিয়ে শেষে বউকে নিয়ে আর হেলিকপ্টারে করে ফিরে যাবো। আপনারা সকলে আমাদের জন্য দোয়া করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর...

© All Rights Reserved© 2022 DainikBD24

Theme Customized BY Sky Host BD