1. info@dainikbd24.com : দৈনিক বাংলাদেশ : দৈনিক বাংলাদেশ
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৩:০২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দূর্ঘটনায় স্বামীর মৃত্যু ও আর্থিক সাহায্যের জন্য অসহায় স্ত্রী’র সংবাদ সম্মেলন গাইবান্ধায় সংবাদ প্রকাশের জেরে বালু ব্যবসায়ীর চাঁদাবাজির মামলায় সাংবাদিক মিলন খন্দকারকে কারাগারে প্রেরণ জেলা প্রশাসকের আশ্বাসের পরও অধিগ্রহণ কৃত জমির মূল্য পাচ্ছে না জমির মালিকগন দুস্থ ও অসহায় মানুষের মাঝে সেনাবাহিনীর বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা ও ঔষধ বিতরণ গাইবান্ধায় বন্যা দুর্গতদের মাঝে চাল ও শুকনো খাবার বিতরণ সাদুল্লাপুরে প্রধান শিক্ষক কর্তৃক কিশোর বলাৎকারের ভিডিও ফাঁস ভেজাল ভূষি তৈরির সেই জিয়ার বিরুদ্ধে বিএসটিআই এর মামলা ! নানা আয়োজনে লায়ন গনি মিয়া বাবুল এর জন্মদিন উদযাপন গাইবান্ধা সদরে হত্যার উদ্দেশ্যে যুবককে ছুড়িকাঘাত,গৃহবধুর শ্লীলতাহানি পলাশবাড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বৃক্ষ রোপন

ধামইরহাটে স্কুল ছাত্র কে প্রসাব খাওয়ানোর অভিযোগ স্কুল শিক্ষিকার

নিজম্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৩১ মে, ২০২২

মেহেদী হাসান রাজু,ষ্টাফ রিপোর্টারঃ

 

নওগাঁর ধামইরহাটে স্কুল ছাদে প্রসাব করার অপরাধে প্রসাব খাওয়ানোর অভিযোগ উঠেছে শিক্ষিকা মোছাঃশাহানা বেগমের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (৩১মে) দুপুরে উপজেলার চকচান্দিরা সরকারি প্রাইমারি বিদ্যালয়ে এই ঘটনা ঘটে।বিষয়টি তার অভিভাবকদের জানালে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়। অভিভাবকেরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন।

নির্যাতনের শিকার পঞ্চম শ্রেণির ছাত্র সাব্বির জানান,আমি স্কুলের ছাদ থেকে প্রসাব করার কারনে ম্যাডাম আমাকে অনেক মারধর করে ও আমার হাতে একটা প্লাস্টিকের বোতল দিয়ে বলে যে এখানে প্রসাব কর,আমি ভয়ে ভয়ে প্রসাব করি,তারপর বলে এখন তুই এই প্রসাব খা,না খেলে আরো মারবো আমি ভয়ে প্রসাব খেয়ে বাসায় গিয়ে বাবা মা কে পুরো ঘটনা বলে দেই।

সাব্বির এর মা সাবিনা আক্তার জানান,আমার ছেলে যদি অপরাধ করে থাকে তাহলে অভিভাবক দের জানাবে,না জানিয়ে অন্যায় ভাবে মেরেছে ও প্রসাব খাওয়াইছে।তাহলে আমাদের সন্তানদের নিরাপত্তা কোথায়?’ তিনি তাদের সন্তানদের নিরাপত্তার স্বার্থে অভিযুক্ত শিক্ষিকার অপসারণ দাবি করেন।

ঘটনার সত্যতা জানার জন্য অভিযুক্ত শিক্ষিকা মোছাঃশাহানা বেগম জানান,আমি রাগ করে বলেছি যে তুমি ছাদ থেকে কেনো প্রসাব করলে,এখন তুমি এই প্রসাব খাও বলেছি কিন্তু তিনি অস্বিকার করে বলেন যে সে ছাত্র প্রসাব খায়নি।

ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃএরশাদ আলী (ডলার) ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান,তিনি ঘটনার সময় ছিলেন না অফিসে বিশেষ কাজে ব্যাস্ত ছিলেন,পরে সহকারী শিক্ষিকা তানজিলার মুখ থেকে বিস্তারিত শুনেন বলে জানান।

এলাকাবাসী ও অভিভাবকেরা জানান,মঙ্গলবার দুপুরে তারা স্কুল ঘেরাও করেন। কিন্তু অভিযুক্ত শিক্ষিকা স্কুলের ভিতর দরজা বন্ধ করে থাকেন। তারা অবিলম্বে অভিযুক্ত শিক্ষিকার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে, উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃআজমল হোসেন দৈনিক বাংলাদেশ অনলাইন পত্রিকাকে জানান, পুরো ঘটনা শুনেছি খুব দুঃখজনক বিষয়,আমরা তদন্ত করছি তদন্ত সাপেক্ষে আইনিপদক্ষেপ নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর...

© All Rights Reserved© 2022 DainikBD24

Theme Customized BY Sky Host BD