কবরস্থানের রাস্তা নির্মাণ করে প্রশংসা কুড়ালেন ইউপি সদস্য রবিজল।

দৈনিক বাংলাদেশদৈনিক বাংলাদেশ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:৩৩ AM, ১৮ মে ২০২২

গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধিঃ

অতিদরিদ্র কর্মসংস্থান কর্মসূচী প্রকল্পের মাধ্যমে গাইবান্ধা সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রামীণ জনপদের সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।এরি ধারাবাহিকতায় ১৪ মে শনিবার দুপুরে বোয়ালী ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডে শ্রমিকরা কবরস্থানের রাস্তা নির্মাণের কাজ করে যাচ্ছেন।

৪০ দিনের কর্মসূচীতে সাধারনত রাস্তা,ধ্বসে যাওয়া রাস্তার পাড় সংস্কার করা হয়।এতে দীর্ঘদিন থেকে চলাচল অনুপোযোগী হয়ে পড়া রাস্তাগুলো আবারো চলাচলের উপযোগী হয়ে উঠছে।সেই সাথে হতদরিদ্র কর্মহীন মানুষ এ কর্মসূচীতে ৪০ দিন কাজ করার সুযোগ পাচ্ছেন,এতে তারা আর্থিকভাবে যেমন লাভবান হচ্ছেন তেমনি ভাবে সাধারণ জনগণ উপকৃত হচ্ছেন।

অতিদরিদ্রদের জন্য ৪০ দিনের কর্মসংস্থান কর্মসূচীর আওতায় গাইবান্ধা সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের রাস্তাঘাট সংস্কার করা হচ্ছে।এরি ধারাবাহিকতায় গাইবান্ধা সদর উপজেলার ৮ নং বোয়ালী ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডে কবরস্থানে যাতায়াতের জন্য রাস্তা নির্মানের কাজ করছেন শ্রমিকরা।

কবরস্থানের রাস্তা নির্মাণের বিষয়ে স্থানীয়রা জানান,অতিদরিদ্র কর্মসংস্থান কর্মসূচী প্রকল্পের মাধ্যমে আমাদের ৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য রবিজল কবরস্থানের রাস্তা নির্মাণ করায় এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।মাটি ভরাট করে বোর্ডবাজার কনকরায় রোডের সাথে সংযোগ স্থাপন করে কবরস্থানের রাস্তাটি নির্মাণ করায় কবরস্থানে মৃতদেহ নিয়ে যেতে এখন আমাদের অনেক সুবিধা হবে।এজন্য আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই সেই সাথে আমাদের ইউপি সদস্য রবিজলকেও ধন্যবাদ জানাই।

এবিষয়ে ইউপি সদস্য রবিজল বলেন,আমাদের মহল্লার এ কবরস্থানটিতে রাস্তা নাথাকায় মৃতদেহ নিয়েযেতে মুসুল্লিদের অনেক কষ্ট হতো।এই কষ্ট থেকেই আমি অতিদরিদ্র কর্মসংস্থান কর্মসূচী প্রকল্পের শ্রমিকদের দিয়ে মাটি ভরাট করে মুসুল্লিদের যাতায়াতের সুবিধার কথা চিন্তা করে কবরস্থানের এ রাস্তাটি নির্মাণ করাচ্ছি।

আপনার মতামত লিখুন :