লোহাগাড়ায় আসামির দায়ের কোপে পুলিশ কর্মকর্তার হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন

দৈনিক বাংলাদেশদৈনিক বাংলাদেশ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:৫৮ PM, ১৫ মে ২০২২

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা প্রতিনিধিঃ

 

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের এক ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামি ধরতে গিয়ে দায়ের কোপের আঘাতে গুরুতর আহত হয়েছে লোহাগাড়া থানার দুই পুলিশ সদস্যসহ মোট ০৩ জন।

রোববার (১৫ মে) সকাল ১০ টার দিকে ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের আধারমানিক চরম্বা সীমান্ত এলাকার লালারখিলে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন, লোহাগাড়া থানার কনস্টেবল হিসেবে কর্মরত মো. জনি, শাহাদত হোসেন ও মামলার বাদী স্থানীয় আবুল কাশেম।

অভিযুক্ত ব্যক্তি পদুয়া ৯নং ওয়ার্ডের লালারখিল এলাকার মৃত আলী হোসেন ছেলে কবির আহমদ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়,লোহাগাড়ায় একাধিক মামলার পরোয়ানাভুক্ত আসামি কবির আহমদকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশ তার বাড়ি ঘেরাও করেছিল।এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কবির আহমদ তার দলবল নিয়ে ১০/১২ জন পুলিশের উপর আক্রমণ করে।এতে ধারালো দায়ের কোপে কনস্টেবল জনির বাম হাতের কব্জি শরীর থেকে বিচ্ছিন হয়ে গেছে।পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পদুয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়।

সেখানে জনির গুরুতর আহত হওয়ায় তাঁকে উন্নত চিকিৎসার কথা চিন্তা করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।বাকি অন্য পুলিশ সদস্য শাহাদত হোসেন ও স্হানীয় আবুল কাসেম কে লোহাগাড়া পদুয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

এদিকে খবর পেয়ে সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শিবলী নোমান, চরম্বা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাওলানা হেলাল উদ্দিনসহ পুলিশের একাধিক টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

পুলিশ জানায়,ঘটনাস্থল থেকে কিছু ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।ঘটনার সাথে জড়িতরা পলাতক।তাদের গ্রেপ্তারের প্রচেষ্টা চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :