পীরগঞ্জে শপথ নেয়ার আগেই সংবাদকর্মীকে পেটালো চেয়ারম্যান ও তার লোকজন!

দৈনিক বাংলাদেশদৈনিক বাংলাদেশ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:১৬ PM, ১৪ মে ২০২২

পীরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি :

রংপুরের পীরগ‌ঞ্জের বৌ বারুনী বাঁশের মেলায় যাদু প্রদর্শনীর না‌মে অশ্লীল নৃত‌্য নি‌য়ে ফেসবু‌কে পোস্ট দেয়ায় এক সংবাদকর্মীকে বেদম পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে ইউপি চেয়ারম্যান ও তার লোকজন। আহত সংবাদকর্মীকে পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। শুক্রবার (১৩ মে) রাতে উপজেলার বড়আলমপুর ইউনিয়নের ধর্মদাসপুর বৌ বারুনী বাঁশের মেলায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ভুক্ত ভোগী জানায়, বড় আলমপুর ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান সেলিমের নেতৃত্বে তাতারপুর গ্রামের মোকসেদ মন্ডলের ছেলে মাসুদ মন্ডল (৩৫) ছোট রসুলপুর গ্রামের মৃত আব্দুর রাজ্জাক মিয়ার ছেলে রতন মিয়া (৪০), ধর্মদাসপুর গ্রামের লুৎফর রহমান এর ছেলে সিরাজুল ইসলাম (৩৩), শিমুলবাড়ী গ্রামের মৃত আমজাদ সরকারের ছেলে আরফান আলী সরকার(৩২), শ্যামদাসের পাড়া গ্রামের আব্দুল জলিল মিয়ার ছেলে রবিউল ইসলাম, ফতেপুর গ্রামের মমদেল মিয়ার ছেলে শফিকুল ইসলাম শফিসহ আরো কয়েকজন
গত দু’দিন ধরে ধর্মদাসপুর বারুনী মেলায় তথাকথিত যাদু প্রদর্শনীর নামে টিকিট কেটে অশ্লীল নৃত্য পরিবেশন করে আসছিল। শুক্রবার রাতে জাতীয় দৈনিক বাংলাদেশ সমাচার পত্রিকা ও জয়যাত্রা চ্যানেলের পীরগঞ্জ প্রতি‌নি‌ধি সাংবাদিক মিনহাজুল মিলন সরেজমিন ওই মেলায় গিয়ে অশ্লীল নৃত্য নিয়ে ফেসবুকে একটি পোস্ট দেয়। বিষয়টি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নজরে আসলে তাৎক্ষণিক ওই কথিত যাদু খেলা বন্ধ করে দেয়।

এতে চেয়ারম্যানসহ তার লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে মেলার মধ্যেই তাকে এলোপাতাড়ি কিল ঘুষি মেরে গুরুতর আহত করে। এ সময় ক্ষিপ্ত চেয়ারম্যান তার লোকজনকে বলেন, ওকে (মিলনকে) সাইজ কর, ওই শালা নির্বাচনের সময়ও ভীষন জ্বালাইছে। একপর্যায়ে স্থানীয়রা আহত সাংবাদিক মিলনকে উদ্ধার করে পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করে। এদিকে সাংবাদিক নির্যাতনের বিষয়টি এলাকায় দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে সাংবাদিকসহ বিভিন্ন মহলে নিন্দার ঝড় ওঠে। তারা সুষ্ট তদন্তের মাধ্যমে ঘটনার সঙ্গে জড়িদের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবী করেন।

আপনার মতামত লিখুন :