হাইপারটেনশন এ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার রংপুর এর বিশ্ব লুপাস দিবস পালন

দৈনিক বাংলাদেশদৈনিক বাংলাদেশ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:৩৬ AM, ১১ মে ২০২২

রংপুর বিভাগীয় প্রতিনিধিঃ

লুপাস করো দৃশ্যমান এই স্লোগানকে সামনে রেখে হাইপারটেনশন এ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার রংপুর এর আয়োজনে জিসকা ফার্মাসিটিকেলস এর বৈজ্ঞানিক সহযোগিতায় বিশ্ব লুপাস দিবস গত ১০ মে হাইপারটেনশন এ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার মিলনায়তনে অধ্যাপক ডাঃ শাহ মোহাম্মদ সরোয়ার জাহান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রংপুর সিটি কর্পোরেশন এর মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা লুকাস ডে সম্পর্কিত আলোচনা করেন ডাঃ তৌহিদুল ইসলাম তুহিন।
এসময় বক্তব্য রাখেন ডাঃ আবু জাফর মুহাম্মদ কামরুল ইমান রাশেদ, ডাঃ প্রবাল সুত্রধর, ডাঃ মোঃ নাজমুল করিম, জিসকা ফার্মাসিটিকেলস এর ডিপুটি সেলস ম্যানেজার মোঃ আহসান হাবীব প্রমুখ।

দিবসকে ঘিরে আয়োজনটির সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও সঞ্চালনায় ছিলেন হাইপারটেনশন এ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার রংপুর এর সিইও মোঃ আনোয়ার হোসেন।
বক্তারা বলেন এসএলই বা লুপাস রোগটি সচরাচর দেখা না গেলেও বিরল নয়।আকস্মিকভাবে রোগটি আক্রমণ করে জীবনযাপন দুর্বিষহ করে তোলে। লুপাস গ্রিক শব্দ, যার অর্থ নেকড়ে।
লুপাস বা এসএলই (সিস্টেমিক লুপাস ইরাইথেমেটোসাস) রোগ হলে দেহের রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থা নিজের শরীরের বিভিন্ন কোষের বিরুদ্ধে কাজ করতে শুরু করে। ফলে দেহের ত্বক, গিরা, মাংসপেশি, রক্তকণিকা,¯স্নায়ু, হৃৎপিণ্ড, কিডনি—বলতে গেলে প্রায় সব অঙ্গপ্রত্যঙ্গের ক্ষতি করতে থাকে।
নানা অঙ্গে আক্রমণ করে বলে এই রোগের উপসর্গও বিচিত্র। যেমন: দেহের বিভিন্ন গিরায় ব্যথা, ত্বকে লালচে দাগ বা ফুসকুড়ি, নাকের দুপাশে-গালে প্রজাপতির ডানার মতো বিস্তৃত লাল দানা, মুখের তালুতে ঘা, চুল পড়া, জ্বর, হাত-পা ফোলা, মাথাব্যথা, খিঁচুনি, অসংলগ্ন আচরণ, রক্তশূন্যতা ও রক্তকণিকা কমে যাওয়া, পেট-বুকে পানি জমা সহ নানা ধরনের উপসর্গ দেখা দেয়।
এই রোগে সঠিক সময়ে সঠিক চিকিৎসা নিলে ভালো থাকা যায়। মুশকিল হলো রোগ সহজে নির্ণয় হয় না। দেশের সব জায়গায় রোগ নির্ণয়ের প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষাও হয় না।

আপনার মতামত লিখুন :